fbpx

রিটার্গেটিং এ্যাড ক্যাম্পেইন এ সফল হতে চান ?

Share This Post

Share on facebook
Share on linkedin
Share on twitter
Share on email

আপনি যদি আপনার সর্বোচ্চ বিক্রিত পন্যগুলি কে প্রোমোট করতে চান বা ব্র্যান্ডের পরিচিতি তৈরির দিকে মনোযোগ দেন, তবে গুগল আপনাকে প্রচুর সহায়তা করবে। গুগল আপনার পণ্যগুলিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে এমন লোকদের কাছে আপনার এ্যাড পৌঁছে দিতে সাহায্য করে। তারা অনলাইনে গেলেই গুগল তাদেরকে আপনার সাইটে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করবে। এছাড়া তারা পন্য কিনতে প্রস্তুত থাকলেও তাদেরকে আপনার স্টোরে ফিরিয়ে আনতে সহায়তা করবে। তো এই কাজের জন্য আপনাকে বিশেষ ধরনের এ্যাড তৈরি করতে হবে যেটাকে বলে রিটার্গেটিং এ্যাড। অর্থাৎ, যে একবার পন্য কিনেছে বা আগ্রহ প্রকাশ করেছে,তাকেই আবার টার্গেট করা। ফলে আপনার পন্য বিক্রি হওয়ার হার সহজেই বেড়ে যাবে।

একটি কার্যকর রিটার্গেটিং এ্যাড কীভাবে তৈরি করবেন? এবং এতে আপনার কত ব্যয় করা উচিত? চলুন এই সম্পর্কে আমরা কিছু বিস্তারিত জেনে আসি ।

বাজেট নির্ধারণ

রিটার্গেটিং এ্যাড তৈরি করার সময় আপনাকে গুগল কোনও বিজ্ঞাপনের জন্য যা চার্জ করে শুধুমাত্র সেই পরিমাণ টাকা খরচ করতে হবে। তবে আপনার সাইটের রিটার্গেটিং এর জন্য কতটা ব্যয় করা উচিত তা কয়েকটি বিষয়ের উপর নির্ভর করে:

  • আপনার এ্যাড ক্যাম্পেইন কত সময় চলব ?
  • আপনার ওয়েবসাইটের ট্র্যাফিক কেমন
  • আপনার এ্যাডগুলো প্রচারের মাধ্যম

.এ্যাড ক্যাম্পেইনের সময় অনুযায়ী খরচ

আপনার সাইটে যদি মাসে কমপক্ষে ১০০ টি ভিজিটর থাকে তবে দীর্ঘমেয়াদী বিজ্ঞাপন কৌশল ব্যবহার করলে আপনি রিটার্গেটিং এর মাধ্যমে  সবচেয়ে ভালো ফল পাবেন। এ্যাড টি কতটুকু কাজে আসছে এটা বুঝতে সাধারণত ১ থেকে ৩ মাস সময় লাগে। তাই আমরা কমপক্ষে ৯০ দিনের জন্য আপনার বিজ্ঞাপনটি চালানোর পরামর্শ দিব।রিটার্গেটিং বিজ্ঞাপনগুলি সপ্তাহে ৭ ডলার থেকে শুরু হয়। ফলে আপনি সহজেই সাইটের কার্যকরীতা বাড়াতে ৩ মাসের প্রচারণা চালাতে পারবেন এবং ১০০ ডলারেরও কম খরচেও চালাতে পারবেন।

. ওয়েবসাইটের ট্রাফিকের ভিত্তিতে খরচ

আপনার ওয়েবসাইটের ট্রাফিকের ভিত্তিতে আপনি এমন একটি বাজেট সন্ধান করতে চাইবেন যা আপনাকে আপনার অডিয়েন্স দের কাছ থেকে সেরা ফলাফল পেতে সাহায্য করবে। যদি আপনি বছরের নির্দিষ্ট সময়ে আরও বেশি ভিজিটর পেতে চান,  অথবা আপনি যদি কোনো মৌসুমী পন্যের প্রচার করেন তাহলে আপনার ওয়েবসাইটে ট্রাফিক আরও বেশি পেতে এই তারিখগুলির কাছাকাছি সময়ে আপনার বাজেট বাড়ান।

. এ্যাড প্রচারের মাধ্যম অনুযায়ী খরচ

বাজেট সেট করার আগে, আপনার কাস্টমার রা  কিভাবে আপনার ব্র্যান্ড সম্পর্কে জেনে কেনাকাটার প্রতি উৎসাহী হয় সেটা জানা দরকার। সেটার পুরো চিত্র পেতে আপনি বিজ্ঞাপন প্রচারের জন্য অন্যান্য যেসব মাধ্যম ব্যবহার করেন, সেগুলোর দিকে নজর দিতে পারেন। কোন ই-মেইলে আপনার দেয়া লিঙ্কের মাধ্যমে কেউ আপনার সাইটটি ভিজিট করতে পারে। সে কোন কিছু না কিনেই চলে যেতে পারে। কিন্তু পরবর্তীতে সে ওয়েব জুড়ে আপনার রিটার্গেটিং বিজ্ঞাপনগুলি দেখতে পাবে। এই রিটার্গেটিং এ্যাড গুলি আপনার পণ্যকে ঐ কাস্টমারের মনের শীর্ষে রাখতে সহায়তা করে। কিন্তু আপনি যদি কাস্টমার কে কোনও ফেইসবুক বা ইনস্টাগ্রাম এ্যাডের মাধ্যমে টার্গেট না করেন তবে সে আপনার সাইটে ফিরে আসবে না।
আপনার সমস্ত Mailchimp মার্কেটিং ক্যাম্পেইনের রিপোর্ট গুলি দেখলে আপনি বুঝতে পারবেন কখন কোন সাইটের মাধ্যমে আপনার কাস্টমার দের আপনার ব্র্যান্ডের সাথে যুক্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। তাই কোন চ্যানেলে আপনার কতটা ব্যয় করা উচিত তা সহজেই সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন ।

কার্যকরী রিটার্গেটিং এ্যাড তৈরি

শুধু কিছু এ্যাড তৈরি করে ছেড়ে দিলেই কিন্তু হবেনা। বরং এমন কিছু এ্যাড বানাতে হবে যেন সেগুলো ঠিকমত কাজ করে। যদি চাহিদা মত কাজই না হয় তবে সেই এ্যাড দিয়ে কি লাভ? আসুন জেনে নিই কিভাবে কার্যকরী রিটার্গেটিং এ্যাড তৈরি করবেন।


সঠিক ছবি নির্বাচন

মনে রাখবেন, আপনি এক অর্থে পন্যের ছবি বিক্রি করছেন। কারন আপনার পন্যের ছবি দেখেই কেউ সিদ্ধান্ত নিবে পন্যটি কিনবে কিনা। তাই ছবি এরকম হওয়া লাগবে যেন দেখেই কাস্টমারের পছন্দ হয়।এ্যাডের জন্য ছবি বাছাই করার সময় কয়েকটি বিষয় মনে রাখা উচিত।

  • হাই-রেজুলেশন এর ছবি ব্যবহার করুন। আপনি যদি ভালো মানের ছবি ব্যবহার করেন তাহলে ওয়েবে আপনার এ্যাড গুলি লোকের দৃষ্টি আকর্ষণ করবে। গুগল স্বয়ংক্রিয়ভাবে বিভিন্ন জায়গাতে ফিট করার জন্য হাজার হাজার বিজ্ঞাপনের বক্স তৈরি করে। এত বিজ্ঞাপনের ভীড়ে যদি আপনার টি আকর্ষণীয় ও ভালো রেজুলেশন হয় তবেই কেউ সেটা দেখতে চাইবে। তাই আপনাকে আপনার ব্র্যান্ডের জন্য সবচেয়ে আকর্ষণীয় ফটোগুলি নির্বাচন করতে হবে।
  •  এমন ছবি ব্যবহার করুন যা আপনার ব্র্যান্ডের প্রতিচ্ছবি তৈরি করে। আপনার বিজ্ঞাপনের কথা গুলোর সাথে আপনার পছন্দ করা ছবি গুলির মিল থাকা দরকার। এবং আপনার অন্যান্য  মাধ্যমে দেয়া এ্যাডের সাথেও মিল থাকা উচিত। আপনার পণ্য গুলিকে কেন্দ্র করে এমন চিত্র নির্বাচন করুন যেন সেগুলো পন্য কেনার বিষয়ে কাস্টমার দের মন তৈরি করতে সহায়তা করে।

লিখিত বিজ্ঞাপন তৈরি

যেহেতু আপনার বিজ্ঞাপনগুলি স্বয়ংক্রিয়ভাবে বিভিন্ন স্থানে বিভিন্ন  আকারে প্রদর্শিত হবে, আপনার এমন কিছু লিখিত বিজ্ঞাপন তৈরি করা উচিত যা আপনার চিত্রগুলির মতো আকর্ষণীয় হবে ও সহজে চোখে পড়বে। আপনি যে বার্তাটি কাস্টমার দের জানাতে চান তা তৈরিতে আপনাকে সহায়তা করতে আমাদের কয়েকটি সেরা পরামর্শ রয়েছে।

  • এটি ছোট রাখুন। যদি কোনও বিজ্ঞাপনের শিরোনাম এবং বার্তা খুব দীর্ঘ হয় তবে গুগল এটিকে কম গুরুত্ব দেয় এবং কাস্টমার রাও পড়ে দেখতে চায় না। তাই আপনাকে সংক্ষিপ্ত এবং তথ্যবহুল কোন বার্তা লিখতে হবে।
  • ব্র্যান্ডের পরিচয় ও বিশেষত্ব বজায় রাখুন। আপনার বিজ্ঞাপনের বার্তাটি আপনার ওয়েবসাইট এবং আপনার অন্যান্য প্রচার মাধ্যমের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ হওয়া উচিত। কাজেই আপনার ব্র্যান্ডের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ এমন একটি বার্তা লিখতে ভুলবেন না।
  • প্রত্যাখ্যান হতে পারে এরকম ভাষা এড়িয়ে চলুন। যে বিজ্ঞাপনগুলিতে অনাকাঙ্খিত বা অনুৎসাহিত করার মত শব্দ, এবং বহুল প্রচলিত কথা অন্তর্ভুক্ত থাকে সেগুলি প্রায়শই কাস্টমার রা প্রত্যাখ্যান করে। এমন ভাষা এড়ানোর চেষ্টা করুন যা আপনার বিজ্ঞাপন প্রকাশ হতে বাধা দিতে পারে।
  • আপনার অডিয়েন্স এর ব্যাপারে চিন্তা করুন। আপনার বার্তাটি যারা পড়বে তাদের জন্য নির্দিষ্ট এবং প্রাসঙ্গিক ভাবে বার্তা তৈরি করুন। উদাহরণস্বরূপ, আপনি জানেন যে আপনি এমন লোকদের কাছে পৌঁছাতে চান যারা আপনার সাইট এবং পণ্যগুলি যাচাই করেছেন। তাহলে বার্তাটি শুধু তাদেরকে উদ্দেশ্য করেই তৈরি করতে হবে। এবং অবশ্যই সেটা ভিজিটর বাড়ানো বা অন্য কোন কাজের জন্য ডিজাইন করা এ্যাডের চেয়ে আলাদা হবে ।

এ্যাড ক্যাম্পেইন পর্যালোচনা

রিটার্গেটিং এ্যাড গুলো পরিষ্কার ও তথ্য বহুল রিপোর্ট তৈরি করে। এই রিপোর্ট থেকে আপনি কোনও পেজে গড় এ্যাডের পজিশন, গড় অর্ডারের পরিমাণ, নতুন গ্রাহক, বিক্রয়কৃত পণ্যের সংখ্যা ইত্যাদি জানতে পারবেন। এবং এই তথ্য গুলোর সাহায্যে এগুলার কোনটির উন্নতি হচ্ছে,বা কোনটির হচ্ছে না সেটা সহজেই বুঝতে পারবেন । এতে করে আপনি আপনার বিজ্ঞাপনটি প্রয়োজন মত এডিট করতে পারবেন।

আপনার এ্যাড ক্যাম্পেইন ৯০ দিন চলার পরে, কতটা ROI উৎপন্ন হয়েছে এবং আপনার স্টোর থেকে কোন পণ্যগুলি বিক্রি হচ্ছে দ্রুত হিসাব করুন। তারপর দেখুন সেই পন্য গুলি আপনার বিজ্ঞাপনের সাথে মেলে কিনা? বিক্রয়ের উপর ভিত্তি করে আপনার এ্যাডে ব্যবহার করা আইটেমগুলি পরিবর্তন করতে পারেন।

শুরু করুন এখনই !

আপনি কি শুরু করতে প্রস্তুত? মাত্র কয়েকটি ক্লিকেই আপনার রিটার্গেটিং এ্যাড ক্যাম্পেইন চালু করুন এখনই !
এখনই শুরু করুন নিচের লিংকে…

https://urboart.digital/contact-us-urboart-digital/

ফ্রি ডিজিটাল মার্কেটিং স্ট্র্যাটেজীবুক

ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাধ্যমে আপনার ব্যবসাকে আরো স্মার্ট আর দ্রুতগতিতে বাড়াতে চাইলে আপনার প্রয়োজন একটি ডিজিটাল মার্কেটিং স্ট্র্যাটেজী।

আমাদের এই বইটি থেকে আপনি জেনে নিতে পারেন কিভাবে আপনার ব্যবসার জন্য একটি কার্যকর ডিজিটাল মার্কেটিং স্ট্র্যাটেজী দাড়া করাবেন।

আরো পড়ুন

blogs

ফেসবুক বিজ্ঞাপনে সফলতা অর্জনের দ্রুত ও কার্যকর পদ্ধতি

ফেসবুকের সিইও মার্ক জুকারবার্গ জানিয়েছেন যে প্রায় ২.২ বিলিয়নেরও বেশি মানুষ প্রতি মাসে ফেসবুক ব্যবহার করে। প্রতিদিন এটি ব্যবহার করে প্রায় 1.5 বিলিয়ন মানুষ। কাজেই যেসব

blogs

ব্যাবসায়িক ওয়েবসাইটের উন্নয়নের জন্য সঠিক টুলস নির্বাচন

ব্যবসার জন্য একটি ওয়েবসাইটের গুরুত্ব বা প্রয়োজনীয়তা কতটুকু তা সকলেই জানে। তাই ব্যবসার শুরু থেকেই প্রায় সকলের এ বিষয়ে একটি প্ল্যান থাকে এবং ওয়েবসাইট প্রস্তুত

ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাধ্যমে স্মার্টলি ব্যবসা বাড়াতে চান?

ফ্রি কন্সাল্টেশন সেশনের জন্যে যোগাযোগ করুন আজই

Close Menu

ডিজিটাল মার্কেটিং স্ট্র্যাটেজীবুক

এই বইটি আপনাকে সাহায্য করবে আপনার ব্যবসার জন্যে একটি কার্যকর ডিজিটাল মার্কেটিং স্ট্র্যাটেজী তৈরী করতে।
ফ্রি ডাউনলোড করতে আপনার নাম, ফোন নাম্বার এবং ইমেইল দিন।