fbpx

যোগ্য ওয়েব ডিজাইনার নির্বাচন করুন সহজেই

Share This Post

Share on facebook
Share on linkedin
Share on twitter
Share on email

ব্যবসায়ের জন্য বর্তমানে ওয়েবসাইটের গুরুত্ব প্রায় সকলেই জানে। আর একটা ব্যবসায়িক ওয়েবসাইট মূলত ব্যবসা টির ডিজিটাল প্রতিচ্ছবি। তাই একটা ওয়েবসাইটের ডিজাইন ব্যবসায়ের ওপর উল্লেখযোগ্য প্রভাব ফেলে। আপনি অবশ্যই চাইবেন আপনার সাইটের ডিজাইন আকর্ষণীয় ও মান সম্মত  হোক। এজন্য আপনার দরকার একজন দক্ষ ও অভিজ্ঞ ওয়েব ডিজাইনার।

 

কিন্তু হাজার হাজার ওয়েব ডিজাইনারের মধ্য থেকে আপনার কাজের জন্য পারফেক্ট একজন কে কিভাবে খুজে বের করবেন? চলুন জেনে নিই একজন দক্ষ ও অভিজ্ঞ ওয়েব ডিজাইনার নির্বাচন করার উপায়।

প্রাথমিক কাজ

সঠিক ডিজাইনার নির্বাচন করার পূর্বে আপনাকে কিছু কাজ করে নিতে হবে।ফলে সহজে আপনি কি রকম ডিজাইনার চান এটা বুঝতে পারবেন।

 

লক্ষ্য স্থির করুন

আপনি ঠিক কি চান সেটা আগে স্থির করতে হবে। তা নাহলে কখনোই ভালো ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন না। আপনার সাইট কেমন হবে, তাতে কি ফিচার থাকবে, কনটেন্ট কেমন হবে, এটা দিয়ে আপনি কি কি কাজ করতে চান ইত্যাদি ঠিক করুন। এতে একদম চাহিদা মতই ওয়েবসাইট বানাতে পারবেন এবং যোগ্য ডিজাইনার বাছাই করতে পারবেন।

 


বাজেট
নির্ধারণ করুন

ওয়েবসাইট ডিজাইন করার জন্য আপনি কত টাকা খরচ করতে চান এটা প্রথমেই ঠিক করে নেয়া উচিত। কারন আপনি কত খরচ করতে পারবেন এটার ওপরই আপনার সাইটের মান নির্ভর করবে। আর সাইটের মান যেরকম হবে সেই অনুযায়ী একজন ডিজাইনার আপনার দরকার। বাজেট বেশি হলে সাইটের মান ও ভালো হবে, তাই ডিজাইনার ও হতে হবে অনেক অভিজ্ঞ।

কাজেই আপনি যদি বাজেটটা আগে ঠিক করে নেন তাহলে সঠিক ডিজাইনার খুজে পাওয়া সহজ হবে।

 

ডিজাইন পছন্দ করুন

আপনার সাইটটি কেমন হবে, তাতে কি কি ফাংশন থাকবে ইত্যাদি নির্ধারণ করে নিন। গ্রাফিক ডিজাইনার দিয়ে নিজের মতো করে একটা লে-আউট তৈরি করতে পারেন। অথবা বিভিন্ন ওয়েবসাইট ভিজিট করে ও ওয়েবসাইটের মডেল দেখে ডিজাইন পছন্দ করতে পারেন। আপনি ঠিক যেভাবে চান সেভাবেই লে-আউট তৈরি করলে ওয়েবসাইট বানাতে সুবিধা হবে।

 

কোথায় পাবেন ডিজাইনার ?

জকাল অনেক ওয়েব ডিজাইনার পাবেন চারপাশে। অনেকে আছে ফ্রিল্যান্সার হিসেবে কাজ করে। এছাড়া বিভিন্ন ওয়েবসাইট ডিজাইন এজেন্সি এবং ফুল-সার্ভিস ডিজিটাল মার্কেটিং এজেন্সি আছে। এদের মাধ্যমে সহজেই আপনি ওয়েবসাইট ডিজাইন করিয়ে নিতে পারবেন।

 

ফ্রিল্যান্সার

দেশি-বিদেশি আউটসোর্সিং ও ফ্রিল্যান্সিং সাইটগুলোর মাধ্যমে আপনি একজন ফ্রিল্যান্সার ওয়েব ডিজাইনার কে হায়ার করতে পারবেন। ফ্রিল্যান্সারদের মাধ্যমেই আপনি সবথেকে কম খরচে ডিজাইন করাতে পারবেন।তবে প্রচুর অদক্ষ ও অনভিজ্ঞ ব্যক্তি আছে যারা কিছুই পারেনা, কিন্তু নিজেদের ওয়েব ডিজাইনার বলে পরিচয় দেয়। তাই কোন ফ্রিল্যান্সারকে দায়িত্ব দেয়ার আগে তাকে ভালোভাবে যাচাই করে নিতে হবে। নতুবা আপনার সময় ও টাকা উভয়ই নষ্ট হবে।

ওয়েবসাইট ডিজাইন এজেন্সি

ওয়েব ডিজাইন এজেন্সি গুলোতে প্রতিটা কাজের জন্য আলাদা লোক থাকে। যেমন, গ্রাফিক্স ডিজাইনার থাকে ওয়েবসাইটের টেমপ্লেট ডিজাইন করার জন্য। ওয়েব ডিজাইনার থাকে,ডেভলপার থাকে।মোটামুটি কয়েকজনের একটা টিম মিলে একটি সাইট তৈরি করে। তাই তাদের কাজ গুলাও হয় উন্নত মানের। এদের মাধ্যমে আপনি নিশ্চিন্ত ভাবে সাইট তৈরি করে নিতে পারবেন। তবে এজেন্সির মাধ্যমে করালে খরচ কিছুটা বেশি হয়। একটু খোজ নিলেই এরকম প্রচুর এজেন্সি বা আইটি কোম্পানি পাবেন।

 

ফুল-সার্ভিস এজেন্সি

ফুল সার্ভিস ডিজিটাল মার্কেটিং এজেন্সি গুলা আপনার সাইটের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত সকল কাজ করে দেয়। ডোমেইন হোস্টিং থেকে শুরু করে টেমপ্লেট তৈরি,ডিজাইন করা,ডেভলপ করা,এসইও করা এবং এ্যাড প্রমোশন ও করে দেয়। ওয়েবসাইট তৈরির পর যদি আপনার ডিজিটাল মার্কেটিং এর পরিকল্পনাও থাকে তবে এরকম কোন এজেন্সিকে কাজ দেয়াই উত্তম। এরা প্রফেশনালি সকল রকম সহায়তা প্রদান করে। অনেক এজেন্সি কাজ শেষ হওয়ার পরও পরবর্তী তে কিছু সেবা দেয়। আবার অনেকে ওয়েবসাইট ডিজাইন করার জন্য প্যাকেজ আকারে বিভিন্ন অফার দেয়।

 

তবে এতসব সুবিধা ও সেবার কারনে এদের খরচ টা অনেক বেশি।

 

 

 

ডিজাইনার নির্বাচন

ভাল ডিজাইনারের কিছু বৈশিষ্ট্য থাকে যেগুলা দেখে আপনি তার দক্ষতা ও যোগ্যতা বুঝতে পারবেন। এখানে আমরা এ ব্যাপারে বিস্তারিত আলোচনা করব যেন আপনি যোগ্য ব্যাক্তি কে সহজে খুজে পান।

 

ইনফরমেটিভ ডিজাইনার

একজন অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ও যোগ্য ডিজাইনার আপনাকে আপনার ব্যবসায়ের ব্যপারে খুটিনাটি প্রচুর প্রশ্ন করবে। সে চাইবে আপনার ব্যবসার স্ট্র্যাটেজি জানতে, আপনি কি চান সেটা ভালোভাবে বুঝতে। ব্যবসার সফলতার জন্য এটা অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। কারন ডিজাইনার যদি এগুলা না জানে তাহলে সে আপনার চাহিদা মত মান সম্মত ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেনা।

তাই যারা আপনার ব্যবসার প্রতি তেমন আগ্রহ দেখায় না সেসব ডিজাইনার দের প্রথমেই বাদ দিতে পারেন।

 

পোর্টফলিও এবং রেফারেন্স

কোন ডিজাইনারকে নিয়োগ দেয়ার পূর্বে অবশ্যই তার পোর্টফলিও দেখার জন্য অনুরোধ করবেন। ভালো ডিজাইনার তার পূর্বের কাজ গুলোকে পোর্টফলিও তে সংরক্ষণ করে। সেখান থেকে তার পূর্বের কাজ গুলা ভালোভাবে পর্যবেক্ষণ করলেই আপনি বুঝতে পারবেন সে কতটা যোগ্য এবং কি রকম কাজ পারে। তবে পোর্টফলিও হচ্ছে এক পক্ষের বক্তব্য। ক্লায়েন্ট পাওয়ার উদ্দেশ্যে কোন ডিজাইনার পোর্টফলিও তে ভূয়া তথ্যও ব্যবহার করতে পারে। এজন্য পোর্টফলিও দেখার পাশাপাশি তার পূর্বের কোন ক্লায়েন্টের রেফারেন্স ও নিতে হবে। সেই ক্লায়েন্টের সাথে যোগাযোগ করলে আপনি তার পূর্বের কাজের একটা রিভিউ পাবেন। ফলে বুঝতে পারবেন সে আদৌ যোগ্য কিনা।

ডিজাইনের পদ্ধতি ও কৌশল

ওয়েব ডিজাইন সম্পর্কে যাদের পরিপূর্ণ ধারনা নেই তাদের অনেকেই এতকিছুর পরও একজন ডিজাইনার কে বুঝতে পারেনা। কারন বর্তমানে প্রচুর অদক্ষ ও লো-ক্লাস ডিজাইনার আছে যারা শুধুমাত্র আয় করার জন্য ভূয়া তথ্য দিয়ে ক্লায়েন্টের থেকে কাজ নেয়। তাছাড়া অনলাইনের জগতে কিছুদিন পরপরই নতুন নতুন আপডেট আসে।

তাই ডিজাইনার কে বেশি বেশি প্রশ্ন করুন তার ডিজাইনের পদ্ধতির বিষয়ে। সে কিভাবে ডিজাইন করবে, কিভাবে কনটেন্ট ক্রিয়েট করবে, ডিজাইনটি কতটুকু কাজে আসবে ইত্যাদি প্রশ্ন করুন।

একজন দক্ষ ব্যাক্তি আপনাকে ভালো ভাবে তার সার্ভিস ও পদ্ধতি বুঝিয়ে দিবে। কিন্তু যারা অদক্ষ তারা শুধু ভালো কাজের আশ্বাস দিবে এবং এমন সব বিষয় বলবে যেগুলা সম্পর্কে আপনার কোন ধারনা নেই।এরকম ডিজাইনারদের প্রতি মাথা না ঘামিয়ে দক্ষ ডিজাইনার কে খুজে বের করুন।

মনে রাখবেন, আপনার ওয়েবসাইটই আপনার ব্যবসায়িক পরিচয়। যদি আপনার ওয়েবসাইট মান সম্মত না হয় তবে সেই সাইট আপনার ব্যবসায় কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারবে না। তাই অবশ্যই একজন দক্ষ ও অভিজ্ঞ ব্যক্তিকে দায়িত্ব দিন যে আপনার চাহিদা পূরন করার মত যোগ্যতা রাখে।

 

ফ্রি ডিজিটাল মার্কেটিং স্ট্র্যাটেজীবুক

ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাধ্যমে আপনার ব্যবসাকে আরো স্মার্ট আর দ্রুতগতিতে বাড়াতে চাইলে আপনার প্রয়োজন একটি ডিজিটাল মার্কেটিং স্ট্র্যাটেজী।

আমাদের এই বইটি থেকে আপনি জেনে নিতে পারেন কিভাবে আপনার ব্যবসার জন্য একটি কার্যকর ডিজিটাল মার্কেটিং স্ট্র্যাটেজী দাড়া করাবেন।

আরো পড়ুন

Blogs

ফেসবুক বিজ্ঞাপনে সফলতা অর্জনের দ্রুত ও কার্যকর পদ্ধতি

ফেসবুকের সিইও মার্ক জুকারবার্গ জানিয়েছেন যে প্রায় ২.২ বিলিয়নেরও বেশি মানুষ প্রতি মাসে ফেসবুক ব্যবহার করে। প্রতিদিন এটি ব্যবহার করে প্রায় 1.5 বিলিয়ন মানুষ। কাজেই যেসব

Blogs

ব্যাবসায়িক ওয়েবসাইটের উন্নয়নের জন্য সঠিক টুলস নির্বাচন

ব্যবসার জন্য একটি ওয়েবসাইটের গুরুত্ব বা প্রয়োজনীয়তা কতটুকু তা সকলেই জানে। তাই ব্যবসার শুরু থেকেই প্রায় সকলের এ বিষয়ে একটি প্ল্যান থাকে এবং ওয়েবসাইট প্রস্তুত

ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাধ্যমে স্মার্টলি ব্যবসা বাড়াতে চান?

ফ্রি কন্সাল্টেশন সেশনের জন্যে যোগাযোগ করুন আজই

Close Menu

ডিজিটাল মার্কেটিং স্ট্র্যাটেজীবুক

এই বইটি আপনাকে সাহায্য করবে আপনার ব্যবসার জন্যে একটি কার্যকর ডিজিটাল মার্কেটিং স্ট্র্যাটেজী তৈরী করতে।
ফ্রি ডাউনলোড করতে আপনার নাম, ফোন নাম্বার এবং ইমেইল দিন।